Home » ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির মধ্যে ফ্রান্সজুড়ে সাধারণ ধর্মঘট

ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতির মধ্যে ফ্রান্সজুড়ে সাধারণ ধর্মঘট

0 মন্তব্য 80 ভিউজ

ফ্রান্সে কয়েক দশকের মধ্যে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির মধ্যে বেতন ও মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে দেশজুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে দেশটির ট্রেড ইউনিয়ন।

মঙ্গলবারের এই ধর্মঘটে প্রাথমিকভাবে স্কুল ও পরিবহনসহ দেশটির সরকারি খাতগুলোতে প্রভাব পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

উচ্চ মজুরির দাবিতে ফ্রান্সের তেল শোধনাগারগুলোর কর্মীরা কয়েক সপ্তাহ ধরে ধর্মঘট পালন করছে আর তার ধারাবাহিকতায়ই এবার সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। চলমান শ্রমিক ধর্মঘটে ফ্রান্সের প্রধান তেল শোধনাগারগুলোর কার্যক্রম বিঘ্নিত হচ্ছে এবং পেট্রল পাম্পগুলোতে সরবরাহে বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে।

মে-তে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট হিসেবে পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এবার কঠিন এক চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছেন বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে।

জ্বালানি সরবরাহ আবার চালু করতে কিছু শ্রমিককে পেট্রল ডেপোতে কাজে ফিরে যেতে বাধ্য করার সরকারি সিদ্ধান্ত শ্রমিকদের ধর্মঘটে উজ্জীবিত করবে, এমন আশা করছেন ট্রেড ইউনিয়নের নেতারা। সরকারি এই সিদ্ধান্ত শ্রমিকদের ধর্মঘট করার অধিকারকে বিপন্ন করেছে অভিযোগ করে অনেকে এর সামালোচনা করেছেন।

ফ্রান্সের অন্যতম প্রধান শ্রমিক সংগঠন সিজিটি দেশটির বহুজাতিক জ্বালানি ও পেট্রলিয়াম কোম্পানি টোটালএনার্জিসে চতুর্থ সপ্তাহের মতো ধর্মঘট অব্যাহত রাখার আহ্বান জানিয়েছে।

রয়টার্স জানিয়েছে, কোম্পানিটি মজুরি ৭ শতাংশ বাড়ানো ও শুক্রবার বোনাসের ঘোষণা দিয়ে অন্য ইউনিয়নগুলোর সঙ্গে একটি চুক্তি করেছে, কিন্তু সিজিটি মজুরি ১০ শতাংশ বাড়ানোর দাবি করছে; তাদের যুক্তি, একদিকে মুদ্রাস্ফীতি চলছে অপরদিকে কোম্পানিটি বিপুল মুনাফা করেছে।

উচ্চ মুদ্রাস্ফীতির কারণে ইউরো জোনের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশটিতে উত্তেজনা বেড়ে চলেছে। ইতোমধ্যেই ধর্মঘট জ্বালানি খাতের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়েছে যার মধ্যে বহুজাতিক পারমাণবিক বিদ্যুৎ কোম্পানি ইডিএফও আছে। ধর্মঘটের কারণে এখানে ইউরোপের বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য গুরুত্বপূর্ণ রক্ষণাবেক্ষণ কাজ বিলম্বিত হতে পারে।

ফ্রান্সের ১০টি পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের কার্যক্রমে বিঘ্ন ঘটছে, ১৩টি রিয়্যাক্টরে রক্ষণাবেক্ষণ কাজে ফের বিলম্ব ঘটছে আর এতে ফ্রান্সে বিদ্যুৎ উৎপাদন মোট ২ দশমিক ২ গিগাওয়াট হ্রাস পেয়েছে।

ধর্মঘটের কারণে ফ্রান্সের গণপরিবহন ব্যবস্থায় বড় ধরনের প্রভাব পড়বে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইউরোস্টার ট্রেনসহ অন্যান্য ট্রেন ও প্যারিসের পাতাল রেল চলাচলেও বিঘ্ন ঘটবে।

সরকারি কর্মচারিদের ইউনিয়নগুলোও মঙ্গলবারের ধর্মঘটে যোগ দেওয়ার ডাক দিয়েছে। এতে স্কুল ও অন্যান্য সরকারি দপ্তরের কার্যক্রমে বিঘ্ন ঘটার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

রোববার ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী এলিজাবেথ বর্ন জানিয়েছেন, সরকার ২০২৩ সালের বাজেট বিল বিশেষ সাংবিধানিক ক্ষমতা ব্যবহার করে পাস করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এতে এটি পার্লামেন্টের ভোট এড়াতে পারবে।

ধর্মঘটের সময় সারাদেশে বিক্ষোভের কর্মসূচী নেওয়া হয়েছে। প্যারিসে স্থানীয় সময় ১২টা থেকে বিক্ষোভ শুরু হবে।

দ্রব্যমূলের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে রোববার প্যারিসের রাস্তায় বড় ধরনের প্রতিবাদ দেখা গেছে। এদিন কয়েক হাজার মানুষ নগরীটির রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানায়। এ সময় ফ্রান্সের কট্টর বামপন্থি দল লা ফঁস আসুমিজেঁর নেতা জ্য লুক মিলশঁ, চলতি বছর সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পাওয়া লেখক আনি এর্নো পাশাপাশি মিছিল করে এগিয়ে যান।

এ মিছিলের পরই মঙ্গলবারের সাধারণ ধর্মঘট পালনের ডাক দেন মিলশঁ।

 

আরও পড়ুন

মতামত দিন

আমাদের সম্পর্কে

We’re a media company. We promise to tell you what’s new in the parts of modern life that matter. Lorem ipsum dolor sit amet, consectetur adipiscing elit. Ut elit tellus, luctus nec ullamcorper mattis, pulvinar dapibus leo. Sed consequat, leo eget bibendum Aa, augue velit.